ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বেরোবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

ফেসবুকের মাধ্যমে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে চিরতরে প্রস্তানের স্টাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষার্থী তানভির আলম তুষার।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বেলা সোয়া এগারোটার দিকে রংপুরের সাহেবগঞ্জ এলাকায় নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

তানভির আলম তুষার বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ম ব্যাচ এবং অর্থনীতি বিভাগের স্নাতকোত্তর (মাস্টার্স) শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। তুষার নগরীর সাহেবগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ী মহসিন আলীর একমাত্র ছেলে।

বেরোবির অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বেলাল উদ্দীন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আজ সকালের দিকে নিজ বাড়িতে শিক্ষার্থী তুষার আত্মহত্যা করে। এখন পর্যন্ত আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। তুষার খুবই মেধাবী এবং সবার প্রিয় ছাত্র ছিলো। তার এভাবে চলে যাওয়া কোনভাবেই মেনে নিতে পারছিনা। আমরা অর্থনীতি বিভাগ ও বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার এ ঘটনায় শোকাহত।

স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঘুম থেকে না উঠায় চাচাতো ভাই সাব্বির আলম তুষারের ঘরের সামনে এসে ডাকতে থাকে। এরপরেও সাড়া না পাওয়ায় ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঢুকে দেখে তুষার গলা ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

আত্মহত্যার পূর্বে তানভির আলম তুষার বড় দুশ্চিন্তায় ছিলেন বলে তার পোস্টে ধারণা পাওয়া যায়। গভীর রাত দুইটার দিকে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে ‘আই কুয়িট ফর এভার’ পোস্ট দেন। পরে সকালের দিকে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এদিকে সদা হাসিমুখের তুষারের এভাবে চলে যাওয়ায় তার সহপাঠী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে হতাশা প্রকাশ করছেন।

এবিষয়ে মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানার ওসি শওকত আলী বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আমরা এই আত্মহত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছি।

Comments (0)
Add Comment