EID2

কুমিল্লায় পুলিশের অভিযানে ২ টন গাঁজা উদ্ধার, ১ হাজার ১২ জন আটক

কুমিল্লা জেলা মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে দুই টন গাঁজা উদ্ধার ও ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে এক হাজার ১২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২ জানুয়ারি থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত এই পরিমাণ গাঁজা উদ্ধারসহ সংশ্লিষ্টদের আটক করা হয়।

জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় এসব তথ্য জানান। গত প্রায় চার মাসে ২ হাজার ১০ কেজি গাঁজা ছাড়াও আটককৃত মাদকের মধ্য রয়েছে ৫৯ হাজার ৯৬৮ পিস ইয়াবা, ৭ হাজার ৫৯২টি ফেন্সিডিল, ৩৬৬ লিটার দেশি মদ, ১৬২ বোতল হুইস্কি, ৪৮ বোতল বিয়ার, ৯৬ বোতল বিদেশি মদ, ১ হাজার ৩ বোতল ইস্কাপ সিরাপ।

আটককৃত মাদকের বাজার মূল্য প্রায় ৫ কোটি ৩৪ লাখ ১৫ হাজার ৯০০ টাকা।

জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলেন, ‘ভারত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সীমান্তবর্তী জেলা কুমিল্লা। এ কারণে সীমান্ত ডিঙ্গিয়ে চলে আসে মাদক।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) আজিম উল আহসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শাহারিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজি, অতিরিক্ত পুলাশ সুপার (ডিএসবি) আফজাল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সোহান সরকার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) নাজমুল হাসান রাফি, কোতোয়ালি থানার ওসি আনোয়ারুল হক, গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আনওয়ারুল আজিমসহ জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.