ফেসবুকে মেয়ে আইডি খুলে প্রেমের ফাঁদ, বেরোবি’র ৪ ছাত্র আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে মেয়ে সেজে প্রেমের ফাঁদ ফেলে অপহরণের পর টাকা আদায়ের ঘটনায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) চার ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (৫ জুন) দুপুরে রংপুর নগরীর সর্দারপাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে তাজহাট থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- নীলফামারি ডিমলা উপজেলার উত্তর খড়িবাড়ী এলাকার কলিমুদ্দীন মন্ডলের ছেলে ও বেরোবির ইংরেজি বিভাগে ৫ম ব্যাচের ছাত্র মানিক রহমান সাজু (২৭), পঞ্চগড় অটোয়ারী উপজেলার মংলু চন্দ্রের ছেলে ও বেরোবির ইংরেজি বিভাগের ৫ম ব্যাচের ছাত্র দুলাল চন্দ্র (২৭), লালমনিহাটের কালিগঞ্জ উপজেলার চলবলা এলাকার পুলিন চন্দ্রের ছেলে ও বেরোবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৭ম ব্যাচের ছাত্র জগত পতি (২৬), লালমনিহাটের হাতিবান্ধা উপজেলার দক্ষিণ জাওরানী এলাকার বারেক মিয়ার ছেলে ও বেরোবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র শাহ আলম সাদেক (২৬)।

জানা যায়, আটককৃতরা ফেসবুকে ‘সিনথিয়া’ নামে ফেইক আইডি খুলে নীলফামারি জেলার ডিমলা এলাকার খোকরুজ্জামান মিয়ার ছেলে আসাদুজ্জামান (২৬) কে প্রেমে ফেলে দীর্ঘদিন যাবৎ মেয়ে কন্ঠে কথা বলে আসছিল এবং আজ দুপুরে তাকে দেখা করার কথা বলে রংপুর নগরীর কারমাইকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ডেকে নিয়ে আসে।

এরপর ৬/৭ জন ভিকটিম আসাদুজ্জামান কে কৌশলে তাকে জিম্মি করে দুপুর ১ টার দিকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাফেটেরিয়ার সামনে জঙ্গলের ভিতরে নিয়ে যায় এবং তাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার পরিবারের কাছে ফোনের মাধ্যমে টাকা দাবি করে ও মারধোর করে বিকাশে ২৩ হাজার টাকা এবং একটি ফাঁকা স্টামে সই নেয়।

পরবর্তীতে আসাদুজ্জামানকে ছেড়ে দিলে তাজহাট থানা পুলিশ অপহরণকারীদেরকে সর্দারপাড়া থেকে আটক করে। পরবর্তীতে ভিকটিম ও অপহরণকারী সকলকে তাজহাট থানা পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসে।পরে সন্ধ্যায় ভিকটিম আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের তাজহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আক্তারুজ্জামান প্রধান বলেন, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের অপরাধ স্বীকার করেছেন।বাকি অজ্ঞাত আসামীদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.