কুড়িগ্রামে ১ হাজার ৭০ পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর পাকা ঘর

সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভুমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ২য় পর্যায়ের জমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে কুড়িগ্রামে মতবিনিময় ও প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসেক সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, আগামী ২০ জুন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে জেলার ১ হাজার ৭০টি পরিবারের মাঝে ঘরের চাবি ও দলিল হস্তান্তর করবেন।

জেলা প্রশাসক আরো জানান, ২য় পর্যায়ের প্রতিটি ঘর নির্মাণে খরচ হয়েছে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। জেলার ৯ উপজেলায় ১ হাজার ৭০টি পরিবার ২ শতক জমিসহ এসব সেমিপাকা ঘর পাবেন। এরমধ্যে কুড়িগ্রাম সদরে ১০০টি, নাগেশ্বরী উপজেলায় ১০টি, ভুরুঙ্গামারী উপজেলায় ৫১টি, ফুলবাড়ী উপজেলায় ১০৫টি, রাজারহাট উপজেলায় ৮০টি, উলিপুর উপজেলায় ১৫০টি, চিলমারী উপজেলায় ৩০০টি, রৌমারী উপজেলায় ২০১টি, চর রাজিবপুর উপজেলায় ৭৩টি।

জেলা প্রশাসক জানায়, কুড়িগ্রামের ১০০টি ঘরের মধ্যে ধরলা নদীর সন্নিকটে পাঁচগাছী ইউনিয়নের উত্তর নওয়াবস এলাকায় ৮ দশমিক ২৬ একর জমির উপর দুটি পুকুরসহ ধরলা আশ্রয়ন-২ প্রকল্প নামে একসঙ্গে ৮৯টি ঘর তৈরি করা হয়েছে। দৃষ্টি নন্দন এ ঘরগুলোর পাশে একটি খেলার মাঠও রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলা নির্বাহীকর্তা নিলুফা ইয়াসমিনসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.