EID2

আরেকটি ভাল দিন কাটালো টাইগারদের

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা আলোক স্বল্পতায় নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হয়েছে। আলোক স্বল্পতায় দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় সেশনে ১০ দশম ওভার খেলা হয়।

দ্বিতীয় দিনে ৯০ ওভার নির্ধারিত থাকলেও এদিন খেলা হয়েছে ৬৫ ওভার। প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিন শেষেও এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। দিন শেষে ৪ উইকেটে ৪৭৪ রান সংগ্রহ করেছে সফরকারীরা। ৪৩ রান নিয়ে মুশফিক ও ২৫ রান নিয়ে লিটন দাস অপরাজিত আছেন। আগামীকাল কাল খেলা শুরু হবে নির্ধারিত সময়ের ১৫ মিনিট আগে। খেলা হবে ৯৮ ওভার।

দিনের তৃতীয় সেশনের শুরুতে বৃষ্টি নামে। এর পর আলোক স্বল্পতা দেখা দেয়। স্থানীয় সময় বিকেল ৪টার সময় ক্যান্ডির আকাশ ঢেকে যায় মেঘে। এ কারণে আলোর স্বল্পতা দেখা দিলে খেলা বন্ধ রাখতে বাধ্য হন ম্যাচ অফিসিয়ালরা।

ক্যান্ডি টেস্টের প্রথম দিন বুধবার ২ উইকেট ৩০২ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। সাইফ হোসেন শূন্য রানে আউট হলেও দলের ভিত গড়ে দেন তামিম ইকবাল। কিন্তু ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেন তিনি। তামিমের আউটের পর ক্রিজে আসেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তৃতীয় উইকেটে শান্তর সঙ্গে পার্টনারশিপ গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান তিনি। প্রথম দিন শেষে নাজমুল হাসান শান্ত ১২৬ ও মুমিনুল ৬৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। সেখান থেকে আজ দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে তারা।

দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে বিদায় নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রথম সেঞ্চুরিকে দেড়শ ছাড়িয়ে নেওয়ার পর ডাবলের দিকে এগোচ্ছিলেন বাঁহাতি ওপেনার। কিন্তু লাহিরু কুমারার বলে ফিরতি ক্যাচ তুলে দেন ১৬৩ রান করা শান্ত। সেই ভেঙ্গে যায় মুমিনুল হকের সঙ্গে তার ২৪২ রানের রেকর্ড জুটি।

শান্তর আউটের পর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে জুটি গড়েন মুমিনুল হক। চতুর্থ উইকেট দুজনে মিলে ৩০ রান করেন। এর মধ্যে ১২৭ রান করে আউট হন মুমিনুল। লাঞ্চের আগে দেশের বাইরে প্রথম সেঞ্চুরি তুনে টাইগার অধিনায়ক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.